ডিভোর্সি বউ
 লেখক সোহেল মাহমুদ 
পর্ব ৭

ডিভোর্সি বউ


হঠাৎ করে মনে পড়লো মায়ের কথা।

 মা বার বার বলছে তাড়াতাড়ি যেন বাসায় ফিরে আসি। কলেজ কাজটা সেরে চলে আসি দেরি না করি। বিয়ে ঠিক হয়ে গেছে এবং কয়েকদিন পরেই কাবিন হবে। আর এখন যদি ওরা দেখে আমি কলেজেই ঘোরাঘুরি করছি। তাহলে আমার বাবা-মাকে কথা শোনাবে। তুমি ভালনা। মেয়ে ঘোরাঘুরি করে। অনুমতি না নিয়ে বাড়ির বাইরে যায়। 

 ডিভোর্সি বউ

আবার আমার সাথে একটা ছেলে আছে

 এসব বলে অনেক সমস্যা করতে পারে। সমস্যা বলতে কি হতো বিয়েটা ভেঙ্গে দেবে। romantic bangla love story

 এখন সব আত্মীয়-স্বজন সবখানে জন্য যে আমার এখানে বিয়ে হচ্ছে কাবিন হচ্ছে এ অবস্থায় যদি ভেঙ্গে যায় তাহলে তো আমার সম্মানটা নষ্ট হয়ে যাবে। বাবা মা তারা দুঃখ পাবে কষ্ট পাবে। নানান জনের নানান কথা বলবে। এবং পরবর্তীতে আমাকে নিয়ে তারা অনেক সমস্যায় পড়তে পারে। এবং বিয়ে জন্য আসতে পারে আর আসলেও বিভিন্ন জনের বিভিন্ন কথা বলবে। বলবে বিয়ে ঠিক হয়েছিল কিন্তু তারা বিয়ে ভেঙ্গে দিয়েছে। তখন তো আরও অনেক ঝামেলা। আমাকে এই সমস্যাগুলো মুখোমুখি হতে হবে।


এবং কলেজ থেকে দেরি করে গেলে তখন বাবা রাগ করবে। আর আমি বাবাকে অনেক ভালবাসি। বাবা রাগ করে কথা বলা বন্ধ করে দেয় সমস্যা হবে না। আমার নিজের কাছে খারাপ লাগবে। তাছাড়া তাছাড়া বাসায় দেরি করে গেলে মা বকা দেবে অনেক কথা হবে।


সব কথা মনে পড়তেই নীলিমা বলে উঠলো এই এই আমার দেরি হয়ে যাচ্ছে।


কি বলছিস! মাত্র আসলি এখনি দেরি হয়ে যাচ্ছে!


কি বলিস এত তাড়াতাড়ি লেট হয়! তুই তো সহজে যাবার না।


নারে আজকে দেরি করা যাবে না। দেরি করলে সমস্যা আছে। কথা শুনতে হবে রাগ করবে।


ও হ্যাঁ হ্যাঁ আমরা তো ভুলেই গেলাম তোমার তো এখনো আর রাগ করার বিশেষ মানুষটা চলে এসেছে। এখন তো তুমি বাইরে বেশি ঘোরাঘুরি করতে পারবে না। 

সেটা আবার কেমন করে! 

 ডিভোর্সি বউ

 যদি কথা বলতে না পারে তাহলে তো আবার রাগ করবে তখন তুমি তার রাগ ভাঙ্গাতে  থাকবে তো। এখন লেট করলে সমস্যা তো। এখন লেট করলে জবাবদিহি করা। তাছাড়া তোমার তো ইচ্ছে তাড়াতাড়ি যাবে। যাতে করে তার সাথে কথা বলা যায়। তাদের খোঁজ খবর নেওয়া যায়। প্রেম প্রেম খেলা যায় আর কি।


নারে তোরা বুঝার চেষ্টা কর না। এখন মন ভাল ছিলনা। মাকে অনেক বলে বের হয়েছি। এখন তাড়াতাড়ি না গেলে পরে বের হতে দিবে না। বকুনি দিবে।।দরকার নেই বাবা আমি তাড়াতাড়ি চলে যাই আগে কিছু শোনার আগে। bangla love story


ঠিক আছে যা তুই। নাহিদকে না হয় রেখে যা। আমাদের সাথে ওর সাথে আড্ডা দেক। দেখি ওকে বড় করতে পারে কিনা।


না না সে সুযোগ নেই। তোমরা একা পেয়ে কি করবা সেটা আমার জানা আছে। তোমাদের কাছে একে একা ছাড়া যাবে না।

গল্পের নাম ডিভোর্সি
লেখক সোহেল মাহমুদ
পর্ব ১

চল নাহিদ। ওকে বাই রে দেখা হবে পরে। ফোন করিস।


হ্যাঁ করবো। তোমার তো এখন রোমান্টিক মোড।


যা শয়তান


ওদের থেকে বিদায় দিয়ে নীলিমা আন নাহিদ রওয়ানা দিল বাড়ির দিকে। পথে নাহিদ নীলিমাকে বলল আপু সিমা আর অহনা আমার সাথে সত্যি প্রেম করবে। প্রেম করলে করবো নাকি ওদের সাথে।


তোর মাথা গেছে না আছে। ওরা তোর বড় আর তাছাড়া একসাথে দুজন কি প্রেম করতে চায়। পাগল ওরা মজা করছে বুঝস না। আরে একজন হলো একটা কথা ছিল জাস্ট কথাটা ছিল বাট দুজন ওরা এমনিতেই তোর সাথে খুব মজা করছিল। ওরকম কিছুই না। 


সেটাও কথা কিন্তু বড়দের সাথে প্রেম করলে ভালো হতো।


অনেক কিছু পাওয়া যেত যা ছোটদের থেকে পাওয়া যেত না। এডভান্স পাওয়া যেত। অনেক অনেক কিছু যা তোর জন্য মিস করলাম। bd love story


ওরে বাদর তো দেখি অনেক পেকে গেছিস। কাকিকে বলে তোর বিয়ের ব্যবস্থা করছি।


হ্যাঁ দেখেছি তবে বিয়ে করার মতো পাঁকি নি। আপনার আবার পেকে পেকে কাকিকে বলতে হবে না বুঝলেন।


হ্যাঁ হয়েছে হয়েছে বুঝলাম।


বাসায় এসে দেখে নিলীমার আব্বু এবং নীলিমা মা নীলিমার জন্য অপেক্ষা করছো।


কিরে মা এত দেরি হল কেন আমরা তো চিন্তা করতেছি।


কই দেরি কাজটা করে তো চলে আসলাম দেরি করিনি তো।


একটু ঘুরাঘুরি করতে যাচ্ছিলাম তাও করিনি। কলেজে যেতে চাইছিলাম তা-ও যাই নি। তবুও বলছ দেরি।


ওহো ভালো তাহলে। চিন্তে হবে না এখন সব ঠিকঠাক হয়ে আছে। এখন যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে তো সমস্যা না! মেয়ে তো মেয়ের জন্য তো সব বাবা-মা'ই চিন্তা করেন। আমরা তো বাবা মা আমরা চিন্তা করি তুই তাড়াতাড়ি আসলো মনে হয় দেরি করে আসছো। আর তোর মনটা ভাল নেই তাই আরো বেশি চিন্তা।


যা হাতমুখ ধুয়ে ফ্রেশ হয়ে নে তারপর খানা খা।


নীলিমা ফ্রেশ হয়ে খাবার খেয়ে রুমে গিয়ে শুয়ে পড়ল।


কিছুই ভালো লাগছে না। নীলিমার কিছুতেই মন বসছে না। কিছুই ভাল লাগছে না তার। কি করবে মন আনচান আনচান করে।


বাবার ফোন টা এনে নীলিমা একটা গেমস খেলতে লাগলো।


তখন নীলিমা এর ছোট ভাই আসলো।


কি করিস আপু?


গেম খেলি। 

 ডিভোর্সি বউ

আমাকেও দে। আমিও আমিও খেলব।


তুই খেলতে পারবিনা। তুই দেখ, আমি খেলি।


তখন....


চলবে,,,,,,


আগের পর্ব না দেখে থাকতে এই লিঙ্কে গিয়ে দেখে নিন।


আর পরবর্তী পর্ব এবং প্রতিদিন ভালোবাসার সুন্দর সুন্দর গল্প কথা পেতে bdlovestory.com এ আসবেন।


Post a Comment

Previous Post Next Post