ডিভোর্সি বউ
লেখক সোহেল মাহমুদ
পর্ব ৮   bangla love story

ডিভোর্সি বউ

তখন ক্রিং ক্রিং ক্রিং

কে ফোন করল রে মা?

জানিনা। এই নিয়ে দে।

হ্যালো আসসালামু আলাইকুম।
ওয়ালাইকুম আসসালাম। কি অবস্থা কেমন আছেন?
হ্যাঁ ভালো। তো কি অবস্থা? ডিভোর্সি বউ
ভাল
বৌমার খবর কি কাবিনের দিনতো ঘনিয়ে আসছে বৌমার খবর কি এখন?
হ্যাঁ ভালো।
ঠিক আছে তাহলে কাবিনের দিন দেখা হচ্ছে।
ঠিক আছে বেহেন সাহেবা।

তোর শাশুড়ি ফোন করল তোর খবর নিলো। আর  বলল কাবিনের দিন দেখা হবে বলে দিল। 

 ডিভোর্সি বউ - পর্ব ৭

কথাটা শুনে নীলিমার মনটা আরও খারাপ হয়ে গেলো। এমনিতেই তাঁর মন খারাপ ছিল। তার উপর একথা শুনার পরে আরও খারাপ হয়ে গেলো।

একটা কথায় আছে কাটা গায়ে লবন দেওয়া। ঠিক তেমনি হয়ে গেল আর কি। তখন এমনিতেই নীলিমার কোন কিছু ভালো লাগছে না কি করবে ভাবতে পারছেনা। তারপর যখন কাবিনের দিনের কথায় এগিয়ে আসছে এবং শ্বশুরবাড়ির ফোন কল তখন মনটা অনেক খারাপ হয়ে গেল।

মন খারাপ করে নীলিমা শুয়ে পরলো।

তোমার মেয়ে কি যে শুরু করলো না! কাবিনের কথা শুনে শ্বশুর বাড়ির কথা শুনে উদ্দাম করে দরজা বন্ধ করে দিয়ে শুয়ে পড়ল।  সব মেয়েরা বিয়ের কথা শুনলে হাসিখুশি থাকে আর তোমার মেয়ে বিয়ের কথা শুনে মন খারাপ করে সারাদিন শুয়ে থাকে। ওর কাছে যেন শুয়ে থাকে কাজ। কি যে হলো মেয়েটা বুঝতে পারছিনা।

ঠিক আছে আপনি যান আমি দেখছি। আমি বুঝিয়ে বলছি সমস্যা নেই। সে তো রাজি আছে। এমনিতেই চলে যাবে তো এজন্য হয়তো এমন করছো।

এই নীলিমা কি হইছে তোর রোজা খুলতো। কিছু না এমনিতেই ভালো লাগছেনা শুয়ে আছি। ডিভোর্সি বউ

হ্যালো সিমা
নীলিমা তো তোমাদের সাথে আজকে কথা বলল কেমন দেখলে তার মন? হঠাৎ করে মনটা খারাপ করে শুয়ে আছে। একটু বোঝাতে পারো তো এসে।

ঠিক আছে কাকিমা আমি আসতেছি।

৩০ মিনিট পর,,

ওই বান্দর নীলিমা দরজা খোল।
কিরে তুই!

ধর্ষিতা বউ পড়তে ক্লিক করুন


হ্যাঁ কেন আসতে মানা?

নাকি আসলে আবার আপনার হবু বর রাগ করবে। তাকে সময় দিতে পারবেন না। প্রেম করতে পারবেন না। কোনটা তুই না চাইলে আসব না আমি কি চলে যাবো না থাকবো?

আরে না না কি বলিস আয় আয়! ভিতর আয়।

তো অবেলাতে শুয়ে আছিস শরীর খারাপ নাকি? নারে শরীর খারাপ না. ভালো লাগছে না তো ঐজন্য শুয়ে আছি।
ওকে
তো সে কেমন কথাবার্তা বলার সময় পাস কথা বলে বলে?

সেরকম কিছু না ওই একদিন না দুদিন কল দিল এ পর্যন্ত এতোটুকুই। আর তাও কল দিয়ে কথা বলে নাকি ৩০ সেকেন্ডের আগে কেটে দে।

কি বলিস আর হ্যাঁ আমি কি মিথ্যা বলছি নাকি! সে দেব আবার কল এমনিতেই হয়তো কেন দেখল ঐদিন এতটুকু। বাদ দে।

চল বাহিরে যাই উঠানে সবাই বসে আছে। সবার সাথে আড্ডা দিব।

না ভালো লাগছে না। সবাইকে কে কে? অনেকেই তো আছে।
নারে দোস্ত ভালো লাগছে না। আমি ঘরে থাকি তুইও বস।

সিমা বুঝতে পারল নীলিমার মনের অবস্থা। কেমন যে মেয়েটা সারাক্ষণ ঘুরে বেড়াতো যে মেয়ে চঞ্চলতা ছিল যে মেয়ে উঠানে বসে আড্ডা দিত। সেই ঘরে শুয়ে বসে বসে সারাক্ষণ সময় কাটাচ্ছে। হয়তো তার ভাল লাগছে না। তার মনের অবস্থা খুবই খারাপ। তার মনে হয়তো কোন কিছু থাকে তাড়া দিচ্ছে। তাইতো তার মন থেকে সাহস দিচ্ছে না। bd love story

হয়তো মেয়েদের জীবনটাই এমন। কিছু কিছু মেয়ে আছে বিয়ের জন্য লাফালাফি করে। সারাক্ষণ বিয়ের চিন্তা থাকে কখন তাদের বিয়ে হবে কখন জামাই বাড়ি যাবে কখন তারা তাদের জামাই নিয়ে সময় কাটাবে। কিন্তু সব মেয়ে তো সেরকম জামাই পায় না। সব মেয়ে সেরকম শ্বশুরবাড়ি ও পায়না। 

মানুষ চেনা কঠিন?

আবার কিছু কিছু মেয়ে আছে যারা নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা করেন। তারা বিয়ে-শাদী এইসব নিয়ে চিন্তা করে না।

আজকের নীলিমার মনটা বোঝা অনেক কঠিন। নীলিমা হয়তো বিয়েতে করতে রাজি হয়ছে কিন্তু তার মনটা তাকেও রকম সাড়া দিচ্ছে না। ডিভোর্সি বউ

নীলিমা একটা কথা বলব?

হ্যাঁ বল। কি কথা বল না বল!

চলবে,,,,

আগের পর্ব না দেখে থাকতে এই লিঙ্কে গিয়ে দেখে নিন।


আর পরবর্তী পর্ব এবং প্রতিদিন ভালোবাসার সুন্দর সুন্দর গল্প কথা পেতে bdlovestory.com এ আসবেন।


ধন্যবাদ সবাইকে। আপনাদের কোন গল্প থাকলেও শেয়ার করতে পারেন আমাদের সাথে।

Post a Comment

Previous Post Next Post