মেয়েদের চোখে দু রকমের অশ্রু থাকে। ভালোবাসা নিয়ে কিছু কথা


মেয়েদের চোখে দু রকমের অশ্রু থাকে । ভালোবাসার গল্প কথা । Bangla love story


মেয়েদের চোঁখে দুই রকমের অশ্রু থাকে। একটি দুঃখের অপরটি ছলনার- পিথাগোরাস।

মেয়েদের চোখে সাধারণত দুই ধরনের অশ্রু দেখা যায় একটি হল দুঃখের সুখের আনন্দ কষ্ট বেদনার। Bd love story

আর অন্যটি হলো প্রতারণার, ঠকানোর, বিশ্বাসঘাতকতা আর স্বার্থপরতার।

তবে সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো এ দুটোই জল দেখিয়ে বুঝার কোন উপায় নাই এরকম ধরনের জন সেটা কি দুঃখের অশ্রু নাকি ছলনার। দুটো অশ্রুর রং আকৃতি-প্রকৃতি সবকিছু একই। তাই অশ্রু দেখে বুঝার উপায় নেয় যে কোনটার মধ্যে বিশ্বাসঘাতকতা আছে, কোনটার মধ্যে ঠকানোর অশ্রু আছে, কোনটার মধ্যে প্রতারণার অশ্রু থাকে, কোন অশ্রুর মধ্যে চলনা আছে।

পড়তে চাপ দিন গল্প ডিভোর্সি বউ - পর্ব ১২

আবার এটাও বুঝি না কোন অশ্রুতে দুঃখ আছে। কোন চোখের অশ্রুতে কষ্টের অশ্রু মিশ্রিত। Bangla love story

মেয়েরা চাইলে সব ধরনেরই কান্না করতে পারে। সব ধরনের অশ্রু নির্গত করতে পারে
তারা সবকিছুই পারে তাদের চোখের কান্না দিয়ে। তাদের চোখে বিভিন্ন রকমের জল থাকে হয়তো। অনেকেই আবার এরকম মনে করে তারা যে মেয়েদের চোখে পানি আর রঙ দুটোই থাকে। যখন খুশি যে কোন রং মিশ্রিত করে দিতে পারে। যখন খুশি রং চেঞ্জ করে দিতে পারে। পানির মাত্রা কমাতে পারে বাড়াতে পারে। বিভিন্ন রকমের কান্না করতে পারেন। তাদের কান্নার স্টাইল ভিন্ন ভিন্ন ভিন্ন হয়। তার সাথে সাথে থাকে সেটাই আর নাহি বললাম।

মেয়েরা যে কখন কোন ধরনের কান্নার অভিনয় করবে বা সত্যিকারের কান্না করবে সেটা তুমি কখনোই বুঝতে পারবে না। আর তোমার বোঝার ক্ষমতা নেই কারো মেয়েদের কান্না বোঝার ক্ষমতা কারো নেই হয়তো।

মেয়েরা যখন ছলনার কান্না করে বিশ্বাসঘাতকতা কান্না করে প্রতারণার কান্না করে ঠকানোর কান্না করে। তখনও দেখে তুমি হয়তো বুঝবে না তারা যে তোমাকে ঠকানোর জন্য, তোমাকে পর করার জন্য, ছলনার জন্য তোমার সাথে এই কান্নার অভিনয়টা করছে। তাই তখন বুঝবে না। তোমার কাছে তখন মনে হবে সে সত্যিই আসলে তোমার জন্যই কান্না করছে। সেসব আমার কান্না করছে না। সে সত্যিকারে কান্না করছে। এবং সে কান্না দেখে তোমার মনটা ঘুরে যাবে তুমি তাকে বুঝতে পারবে না। বুঝতে পারবেনা তার কান্না ধরনের প্রকৃতি। কেন সে কান্না করছে কোন কারনে কান্না করছে? মনে হয় তোমার জন্যই সে কান্না করছে। কষ্টে কাটছে দুঃখে কান্নাবিজড়িত সে কান্না কখনোই বুঝতে পারোনা। তা মিথ্যা কান্না কখনো তুমি ধরতে পারবে না।

আবার যখন সে সত্যিকারের কাঁদবেন তখন হয়তো তোমার মনে হবে সে আসলেই সত্যিকার এর জন্য কান্না করছে। সত্যিকারের সে আমার জন্য কান্না করছে। কষ্ট দুঃখ পেয়েছে কান্না করছে। এমন হতে পারে যখন সত্যিকারের কান্না করছে তখন তোমার মনে হতে পারে যে সে সত্যিকারের কান্না করছে না। এই কান্নার পিছনে কি লুকিয়ে আছে সে আসলে এটা লোক দেখানো কান্না করছে। আসলে আমার জন্য কান্না করছে না। সে প্রতারণা ঠকানো ছলনার কান্না করছে। তার এই কান্নার পিছনে অভিনয় আছে। সে সত্যিকারের কান্না করছে না।

পড়তে চাপ দিন পৃথিবীর সবচেয়ে নরম জিনিস - Bangla love story

দুটো কান্না কিন্তু একই। কিন্তু তুমি বুঝতে পারলে না। তুমি তার কান্না ধরনটা হয়তো সঠিক অনুমান করলে অথবা ভুল অনুমান করলে। সে কেন কাঁদছে সে প্রকৃতিতে হয়তো তুমি নির্ণয় করতে পারলে না অথবা নির্নয় করতে পারলে হয়তো বা ভুল নির্ণয় করলে। মেয়েদের কান্নার পিছনে দু ধরনের অশ্রু থাকে। একটা হল ছলনা প্রতারণা ঠকানোর অশ্রু কান্না জল পানি। আর অন্যটা হল কষ্টের দুঃখের সত্তিকারের কান্না অশ্রু জল। ভালোবাসার গল্প কথা

তাই সবাই যেন সবাইকে সত্যি কারের ভালবাসে। সত্যিকারের কান্না করে সেটা হোক না সুখের কান্না।

Post a Comment

Previous Post Next Post